করোনা নিয়ে ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাচ্ছে বাংলাদেশ: কাদের

করোনা নিয়ে ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাচ্ছে বাংলাদেশ: কাদের

প্রিয়াংকা ইসলাম :

করোনা মহামারিতে ভারতের ফুটপাতও এখন ‘শ্মশানঘাটে’ পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, অক্সিজেন উৎপাদনে বিখ্যাত দেশ হওয়া সত্ত্বেও ভারত চরম সংকটে। অক্সিজেনের জন্য সেখানে হাহাকার লেগেই আছে। দেশটিতে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাচ্ছে বাংলাদেশ।

 

আজ রোববার দুপুরে রাজধানীর আইডিইবি ভবনে বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা প্রকৌশলী পরিষদ আয়োজিত ‘মুজিব বর্ষ ও কোভিড-১৯ মোকাবিলায় করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে এই অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন। করোনা নিয়ে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, গতকালও ভারতে করোনার মৃত্যুর সর্বোচ্চ রেকর্ড ছিল। ভারত এখন করোনার তাণ্ডবে লন্ডভন্ড। বাংলাদেশে শনাক্ত হয়েছে করোনাভাইরাসের ভয়ংকর ভারতীয় ধরন।

 

এ অবস্থায় সামান্যতম উদাসীনতা বিপজ্জনক ভবিষ্যতেরই পূর্বাভাস। সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, এ দেশের জনগণ অতীতে অনেক প্রাকৃতিক ও মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সফলতার সঙ্গে মোকাবিলা করেছে। চলমান করোনা দুর্যোগও শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সফলভাবে মোকাবিলা করতে সক্ষম হবে বাংলাদেশ। সবাইকে সংযমী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, মহামারি থেকে রক্ষা পেতে ঘরে ঘরে সচেতনতার দুর্গ গড়ে তুলতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে যার যার অবস্থানে থেকে ঈদ উদ্‌যাপন করে এই প্রাণঘাতী করোনাকে প্রতিরোধ করাই এখন একমাত্র দায়িত্ব।

 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, অভিন্ন শত্রু করোনাকে বাদ দিয়ে এখনো দেশে রাজনীতির ‘ব্লেম গেম’ চলমান। যত দোষ কেবল বর্তমান সরকারের। অথচ বাংলাদেশ এখনো তুলনামূলকভাবে ভালো আছে শেখ হাসিনার মতো সাহসী, দূরদর্শী ও মানবিক নেতৃত্বের কারণে। ওবায়দুল কাদের বলেন, জীবন ও জীবিকার মধ্যে সমন্বয় করে শেখ হাসিনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আনতে সমর্থ হয়েছেন। এ কথা তাঁর নিন্দুকেরাও স্বীকার করেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.