শৈলকুপায় নিজস্ব টাকায়  ভাঙ্গা রাস্তা সংষ্কার করে দিলেন সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজ 

শৈলকুপায় নিজস্ব টাকায়  ভাঙ্গা রাস্তা সংষ্কার করে দিলেন সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজ 

সম্রাট হোসেন, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ  
আজ ১৭ মার্চ, খবরের সন্ধানে ছুটে যাচ্ছিলাম শৈলকুপা উপজেলার, ২নং মির্জাপুর ইউনিয়নে রামচন্দ্রপুর বাজারে। হঠাৎ চড়িয়ার বিল বাজারের সাধারণ মানুষ,  ভ্যান ও ইজিবাইক চালক সহ সর্ব মহলের মানুষ আলোচনা করছে,  আবশেষে ফিরোজ চেয়ারম্যান ই রাস্তা সংষ্কার করে দেচ্ছে।
তার বাস্তব প্রামাণ  দিলেন ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ২ নং মির্জাপুর ইউনিয়নে সাংবেক চেয়ারম্যান মোঃ ফিরোজ বিশ্বাস। তার সত্যতা খুজে পাই ৫০০ মিটার যাওয়ার পরই, যানবহন চলাচলের একে বারেই অনঅপযুগী এই সড়কে ইট বালি ফেলে তা আবার নিজের হাতে ও তার কর্মী দের নিয়ে ইট গুলো ভেঙ্গে তার উপর বালি দিয়ে দিচ্ছে।
  চড়িয়ারবিল বাজার থেকে আলমডাঙ্গা বাজার পর্যন্ত সড়ক সংষ্কারের অভাবে দীর্ঘ ৬ বছর যানবহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। জনপ্রতিনিধি দিকে চেয়ে থাকতে থাকতে আজ ৬ বছরে রাস্তা সংষ্কার না হাওয়ার কারণে আজ ১৭ ই মার্চ দুপুর ১২ টা থেকে চড়িয়ার বিল বাজার থেকে শুরু করে  সড়কের ভাঙ্গা চুরা স্থানে ইট ও বালি দিয়ে সংষ্কার করা শুরু হয়েছে। এই রাস্তা সংষ্কার করার জন্য ফিরোজ বিশ্বাস এর প্রায় ৩/৪ লক্ষ টাকা ব্যয় হবে বলে তিনি আমাদের নিশ্চিত করেন।
উল্লেখ্য ২০১১সালে ইউপি নির্বাচনে আংশ গ্রহন করে তিনি বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। চেয়ারম্যান থাকা কালিন সময় তিনি এলকার মানুষ ও রাস্তা ঘাটের ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কাজ করেন।
ফিরোজ বিশ্বাস আমাদের জানান এই রাস্তা দিয়ে যারা চলাচল করে তার ৭৫% লোকই আমার। এদের চলাচল করা খুব কষ্ট হয় তাই আমি নিজস্ব অর্থয়ানে এই রাস্তা সংষ্কার করে দেওয়া কাজ শুরু করলাম। ২ / ৩ দিনের মাঝে কাজ শেষ হয়ে যাবে।
একজন ভ্যান চালক আমাদের বলেন, আমি ২৯ বছর এই রাস্তায় ভ্যান চালায়, রাস্তাটি দীর্ঘ ৬ বছর ধরে খানা খন্দে ভরা ছিলো প্রায় ভ্যান ও ইজিবাইক উল্টেয়ে অনেকের হাত , পা ভেঙ্গে গেছে। ফিরোজ চেয়ারম্যান রাস্তা ঠিক করে দিলো আমরা তাকে আবার চেয়ারম্যান হিসাবে ভোট দেবো।
 এই সংষ্কার কাজে আংশ গ্রহন করেন ফিরোজ বিশ্বাস নিজে, ও জেলা ছাত্রলীগ নেতা জিসান সহ ১৫/২০ নেতা কর্মী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.