1. khyrulislam2@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  2. mbtvnews24@gmail.com : editor :
বাংলা থিয়েটারের ইতিহাসে জায়গা করে নিচ্ছে কলকাতার  বনগাঁর ছেলেমেয়েরা  - MB TV
১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাংলা থিয়েটারের ইতিহাসে জায়গা করে নিচ্ছে কলকাতার  বনগাঁর ছেলেমেয়েরা 

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১
রোমানা রুমা, কলকাতা প্রতিনিধি :
নাট্য শিল্পীদের সাধারণত আমরা মঞ্চে বা মঞ্চের পেছনে বিভিন্ন রকম ভূমিকায় দেখে থাকি । কিন্তু মঞ্চের এই থিয়েটার কর্মীরাই এই ভয়ঙ্কর মহামারী সময়ে তাদের কর্মকাণ্ডের মধ্যে দিয়ে হয়ে উঠেছেন থিয়েটার অ্যাক্টিভিস্ট ।
আমরা জানি থিয়েটারের ইতিহাস পাঁচ হাজার বছরের, আর বাংলা থিয়েটারের ইতিহাস কমবেশি ২২৪ বছরের । সম্ভবত সেই ইতিহাসের পাতায় নতুন সংযোজন হতে চলেছে ‘থিয়েটারের হেঁসেল’ ।
থিয়েটার ফোরাম ও ‘জিজ্ঞাসা বনগাঁ’ উদ্যোগে এই ব্যতিক্রমী কর্মকান্ডটি আগামী ৮ জুন একশত দিবস পার করতে চলেছে । গতবছর লকডাউনে একটানা ৭৫ দিন ধরে চারটি জেলার চারটি শহরে প্রতিদিন এই কর্মকাণ্ডে কয়েকশো অভুক্ত মানুষকে একবেলার পুষ্টিকর ও সুস্বাদু খাবার বিতরণ করা হয় । বাংলা থিয়েটারের বর্তমান সময়ের একটি প্রজন্ম যেমন মঞ্চে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তেমনি মহামারী সময় মানুষের সেবায় তারা সর্বক্ষণ নিয়োজিত । খাবার রান্না করা থেকে পরিবেশন করা, অক্সিজেন জোগাড় করা থেকে হাসপাতালের বেড যোগাড় করা, সুন্দরবনের বিধ্বস্ত অঞ্চল থেকে কোচবিহারের পথে পথে, সমস্ত জায়গাতেই এই প্রজন্ম দাপিয়ে বেড়াচ্ছে একটি লক্ষ্যে । মানুষকে ভালবাসার লক্ষ্য ।

 

এবছর লকডাউন শুরু হতেই আবার তিনটি জেলার চারটি শহরে ‘থিয়েটারের হেঁসেল’ শুরু হয়ে যায় । এই মুহূর্তে পথের কয়েকশো অসহায় মানুষকে খাবার জোগান দিচ্ছে কোচবিহার স্বপ্ন উড়ান, হলদিবাড়ী কোলাজ, বহরমপুর রণ, বহরমপুর থিয়েটার রুটস এবং বিশেষ সহযোগিতায় আছে অনীক কলকাতা ও জন সংস্কৃতি । মূল উদ্যোগটি প্রথম চালু হয় উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বনগাঁতে ।
থিয়েটার ফোরাম এবং জিজ্ঞাসা বনগাঁর সূচনা এই বনগাঁ শহর থেকে হলেও তাদের কাজের ব্যাপ্তি এখন রাজ্যজুড়ে । পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের অসংখ্য নাট্যদল এবং নাট্যকর্মীরা এই দলটির সঙ্গে বিভিন্ন ভাবে যুক্ত আছেন । ফলে মঞ্চ প্রযোজনার সঙ্গে সঙ্গে সমাজসেবামূলক কাজে সরাসরি পথে নেমে পড়া তারা বিশেষ দায়িত্ব বলে মনে করেন । বনগাঁ থেকে এই কর্মকান্ডের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নাট্যকর্মী সত্য জিৎ । তিনি জানান, ”আমাদের কাছে থিয়েটার মানে শুধুই পারফর্ম নয়, থিয়েটার মানে আমাদের কাছে একটি যাপন । যে যাপন মানুষকে ভালবাসতে শেখায়, প্রশ্ন করতে শেখায়, চিন্তার জগতে প্রবেশ করতে শেখায় । এই মহামারী সময়ে যে চিন্তার জগত আমাদেরকে দিক নির্দেশ দিয়েছে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য । এটাই আমাদের থিয়েটার । ‘থিয়েটারের হেঁসেল’ আমাদের চলমান প্রযোজনা ।”

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০৬ - ২০২১
Developed By Bongshai IT