ব্রিটিশ রাজপরিবারের বিরুদ্ধে ডাচেস অব সাসেক্স মেগানের বক্তব্যে রানির উদ্বেগ

ব্রিটিশ রাজপরিবারের বিরুদ্ধে ডাচেস অব সাসেক্স মেগানের বক্তব্যে রানির উদ্বেগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

 

ব্রিটিশ রাজপরিবারের বিরুদ্ধে ডাচেস অব সাসেক্স মেগান মার্কল ও ডিউক অব সাসেক্স প্রিন্স হ্যারির বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগকে গুরুত্বসহকারে নিয়েছে বলে জানিয়েছে বাকিংহ্যাম প্যালেস।

 

বিবিসি জানিয়েছে, এ নিয়ে দেয়া এক প্রতিক্রিয়ায় বর্ণবাদের অভিযোগকে উদ্বেগজনক বলে মন্তব্য করেছেন রানি এলিজাবেথ।

 

রানির পক্ষে বাকিংহ্যাম প্যালেস বিবৃতিতে বলেছে, প্রিন্স হ্যারি এবং মেগানের সাম্প্রতিক বছরগুলোতে যে ঝড়ের মধ্যদিয়ে গেছেন, তা জেনে পুরো রাজপরিবার ব্যথিত।

 

হ্যারি, মেগান এবং তাদের ছেলে অর্চি সবসময়ই রাজপরিবারের ভালোবাসা নিয়ে থাকবে বলা হয়েছে বিবৃতিতে।

 

অর্চির গায়ের রঙ নিয়ে রাজপরিবারে উদ্বেগ ছিলো বলে যে অভিযোগ মেগান তুলেছেন, তাও গুরুত্বের সঙ্গে নেয়া হয়েছে জানিয়েছেন রানি। সেই সাথে পারিবারিকভাবেই বিষয়টি সমাধানের কথা বলেছেন তিনি।

 

সম্প্রতি বিবিসির সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে মেগান অভিযোগ করেন, আমি আফ্রিকান বংশোদ্ভূত আমেরিকান দেখেই এমন আচরণ করেছিল ব্রিটিশ রাজপরিবার। আমার ছেলের গায়ের রঙ কি হবে তা নিয়ে রাজপরিবারের লোকজন উদ্বিগ্ন ছিলো। আমার ছেলেকে রাজকীয় নিরাপত্তা এবং উপাধি দেওয়া হবে না, এমন কথাবার্তা চলছিল চারপাশে।

 

বর্ণবাদের পাশাপাশি মানসিক পীড়নের অভিযোগও করেন রাজপরিবারের বিরুদ্ধে। পীড়ন সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যাপ্রবণ হয়ে ওঠার কথাও স্বীকার করেছেন মেগান মার্কেল।

 

মেগানের এমন বক্তব্যের পর চারদিক থেকে তীব্র সমালোচনা আসছিলো ব্রিটিশ রাজপরিবারের বিরুদ্ধে। এরই প্রেক্ষিতে বাকিংহ্যাম প্যালেস থেকে বিবৃতি আসলো।


Leave a Reply

Your email address will not be published.