1. khyrulislam2@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  2. mbtvnews24@gmail.com : editor :
চন্দননগর ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান  আলহাজ্ব আব্দুর রহমান    ।।    - MB TV
২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চন্দননগর ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান  আলহাজ্ব আব্দুর রহমান    ।।   

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত সোমবার, ৮ নভেম্বর, ২০২১
মোঃ ইমরান ইসলাম,নিয়ামতপুর(নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ
নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার চন্দননগর ইউনিয়নে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুর রহমান।
আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে শিক্ষাজীবন থেকেই রাজনীতিতে অতপ্রোতভাবে জড়িয়ে পড়েন তিনি। তার রাজনৈতিক জীবনে ১৯৭৩ সাল থেকে ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত চন্দননগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ১৯৭৬ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত চন্দননগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৪ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে ২০১৪ সাল থেকে ২০২১ সালের ৩০ মার্চ পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।
ইতোমধ্যে ইউনিয়ন ব্যাপী ভোটারদের মুখে মুখে আলোচনায় চলে এসেছেন সম্ভাব্য এ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। দীর্ঘদিন থেকে চন্দননগর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের সাধারণ, অসহায়, খেটে খাওয়া দরিদ্র মানুষের সুখ-দুঃখের সাথী হয়ে সহযোগিতা নিয়ে পাশে দাড়িয়েছেন। তিনি ইউনিয়নবাসির সবার সাথে সু-সম্পর্ক বজায় রেখে সেবামূলক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন এবং দীর্ঘদিন থেকে নির্বাচনী প্রচারে রয়েছেন। এজন্য ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে, গ্রামে, পাড়া, মহল্লায় ও মোড়ে মোড়ে ভোটারদের কাছে দোয়া ও ভোট প্রার্থনা করে যাচ্ছেন।
আলহাজ্ব আব্দুর রহমান নিজ উদ্যোগে মসজিদ মাদ্রাসা,ঈদগাহ ও মন্দিরে মন্দিরে উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন। সমাজের অবহেলিত, বঞ্চিত মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে তার কর্ম প্রচেষ্ঠায় সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।
নিজেকে সৎ যোগ্য দাবি করে আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বলেন, আমি দলে অনুপ্রবেশকারী নই। আমি ছাত্রজীবন থেকেই সততার সঙ্গে রাজনীতি করে যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছি। আমি জীবনে কখনও টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, মাদকের সঙ্গে নিজেকে জড়াইনি। ছাত্রলীগ থেকে রাজনীতির হাতেখড়ি শুরু, বর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি দায়িত্ব পালন করছি। আমার কর্মদক্ষতা বিবেচনা করে যদি দল আমাকে মনোনয়ন দেন। তবে আগামীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে কাজ করে যাবো।
আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বলেন, আমি দলীয় মনোনয়ন পেলে জনগনের ভোটের মাধ্যমে ইনশাআল্লাহ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে, প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ফুটিয়ে তুলতে গ্রামের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাবো। গ্রামকে করতে হবে শহর। গ্রামে উন্নয়নের ছোয়া পৌঁছে দিয়ে দুঃখ, দুর্দশা, ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সমাজ গঠনে ভূমিকা রাখতে হবে। চন্দননগর ইউনিয়নকে একটি সুন্দর-পরিচ্ছন্ন এবং আদর্শ ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আলহাজ্ব আব্দুর রহমানকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হলে বিজয় সুনিশ্চিত বলে ধারণা করছেন তৃণমূল ভোটাররা। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী এ নেতার উপজেলা ও জেলা নেতাদের সাথে রয়েছে তার সু-সম্পর্ক। ইউনিয়নের দলীয় সকল নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে দলীয় সকল কর্মসূচির মধ্যেও সক্রিয় অংশগ্রহণ রয়েছে তার। করোনা কালে খাদ্যসামগ্রী, হাট বাজারে মাস্ক বিতরণ, বিভিন্ন বিদ্যালয়ে সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ও প্রতি বছর বিভিন্ন পূজামণ্ডপে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন তিনি।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০৬ - ২০২১
Developed By Bongshai IT